Price:৳ 135, $ 3, £ 2
ISBN: 984 70169 0043-3
Type: Hard
Page: 96
In Stock: Avilable

সৃজনশীল গণতন্ত্রের আকাঙ্ক্ষায়

... কপালগুণে আমাদের নানা ধরনের গণতন্ত্রের সঙ্গে পরিচয় ঘটেছে। প্রকৃতি কর্তৃক রাজা গোপালের নির্বাচন, ব্রিটিশ স্টাইল গণতন্ত্র, আইয়ুব খানের বুনিয়াদি গণতন্ত্র, একদলীয় গণতন্ত্র, এরশাদের সামরিক অংশীদারত্বের গণতন্ত্র এবং সর্বশেষ বারো ভূঁইয়ার দেশে ভূঁইয়া গণতন্ত্র বা সামন্ততান্ত্রিক গণতন্ত্র। সেই গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষাকল্পে আমরা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিধান তৈরি করি। দেশে-বিদেশে চোখ তুলে তাকালেও এবং আমাদের পিঠে হাত দিয়ে প্রশংসা করলেও অতিদ্রুত তা বিশ্বাসযোগ্যতা হারায়। আমি বলেছিলাম, এমন জিনিস কেবল আত্মসম্মানহীন গোষ্ঠী আমন্ত্রণ জানাতে পারে। এই কৃত্রিম উপগ্রহ সুপ্রিম কোর্ট চত্বরে নিম্নচাপের সৃষ্টি করে। সেই চাপে দিশেহারা হয়ে তৎকালীন সরকার নিজের পছন্দমতো প্রধান উপদেষ্টা পাওয়ার জন্য বিচারকের বয়সসীমা বৃদ্ধি করে। নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হয়। ... তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিধান পাশ কাটিয়ে রাষ্ট্রপতি নিজেই প্রধান উপদেষ্টার পদ অলংকৃত করলে ঘূর্ণিঝড়টি টর্নেডোতে রূপান্তরিত হয়। দেশ অচল হয়ে পড়ে। সরকারের ব্যর্থতা ভয়াবহ আকার ধারণ করলে রাষ্ট্রপতি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের স্বার্থে পদত্যাগ করেন। ২০০৭ সালের ১১ই জানুয়ারি দেশে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। দেশের লোকে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে। ... গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার ব্যতিক্রম ঘটিয়ে বর্তমান সরকার যে উপপ্লবের সৃষ্টি করেছে, তার দায়িত্ব তাঁদেরই নিতে হবে। ... ভাবনা-এ বছরের মধ্যে সুষ্ঠুভাবে যেন নবম সংসদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে নির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হয়। দুর্ভাবনা-সেই লক্ষ্য অর্জিত হবে তো!

Read More

Authors Details

Muhammad Habibur Rahman / মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান

প্রেসিডেন্সি কলেজ, রাজশাহী কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা লাভ করেন। লন্ডনের লিঙ্কন্স্ ইন থেকে ১৯৫৯ সালে তিনি ব্যারিস্টার হন। বিভিন্ন সময়ে ঢাকা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস ও আইন বিভাগে অধ্যাপনা করেন। ১৯৬৪ সালে তিনি ঢাকা হাইকোর্ট বারে যোগদান করেন। ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি নিযুক্ত হন। তিনি ১৯৯৬ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ-এর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি ২০০৭ সালে একুশে পদক এবং ১৯৮৪ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন। তিনি বাংলা একাডেমি ও এশিয়াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশ-এর একজন ফেলো। তিনি লিঙ্কন্স্ ইন-এর অনারারি বেঞ্চার এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উরস্টার কলেজের অনারারি ফেলো। ৬টি কাব্যগ্রন্থসহ এ পর্যন্ত তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা প্রায় ৬০টি। তিনি বাংলাভাষার প্রথম ভাব-অভিধান যথাশব্দ-এর রচয়িতা। কোরানসূত্র, গঙ্গাঋদ্ধি থেকে বাংলাদেশ, রবীন্দ্রবাক্যে আর্ট সঙ্গীত ও সাহিত্য, আইনের শাসন ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা, বাংলাদেশের তারিখ, মিত্রাক্ষর : অন্ত্যমিল শব্দকোষ, কোরানশরিফ সরল বঙ্গানুবাদ ইত্যাদি তাঁর বিখ্যাত গ্রন্থ। অ্যাডর্ন পাবলিকেশন থেকে প্রকাশিত তাঁর গ্রন্থ Tagore, Ibsen and Other Essays ও সৃজনশীল গণতন্ত্রের আকাক্সক্ষায়।/// Muhammad Habibur Rahman, a former Chief Justice of Bangladesh, was the Head of the Non-party Caretaker Government in 1996. He has so far compiled and written fifty five books including six book of verses, five in Bangla and one in English. Some poems from his A Road Map to Peace but No Where to Go has been translated into Chinese. For literature Mr. Rahman received the Bangla Academy (1984) and Ekushey Award (2007).